অনলাইন মার্কেটিং এ কাজ করতে গেলে আপনার যেই বিষয়গুলো না জানলেই নয়

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বা সিপিএ মার্কেটিং শুরু করতে চাচ্ছেন? অবশ্যই এটি অনেক ভালো একটি উদ্যোগ কিন্তু আপনি যদি এই বেসিক বিষয়গুলো না জেনে থাকেন তাহলে হয়তোবা অনেক জায়গাতেই হোচট খাবার সম্ভাবনা আছে।  হ্যা, এই পোস্টটিতে আপনাকে আমি অনলাইন মার্কেটিং এর বেসিক কিছু কিওয়ার্ড নিয়ে কথা বলবো যা না জানলে অনেক মার্কেটপ্লেসে আপনি একাউন্টই করতে পারবেন না।  চলুন শুরু করা যাক।

অ্যাফিলিয়েট এবং সিপিএ মার্কেটিং এর বেসিক পার্থক্য

আমার দেখা অনেক নতুন মার্কেটার আছেন যারা কিনা অ্যাফিলিয়েট এবং সিপিএ মার্কেটিং এর মূল যেই পার্থক্য সেটা জানে না।  তারা মনে করেন সিপিএ মানেই হচ্ছে ১ পেজের কোন একটি সাইট যেখানে কোন নির্দিষ্ট লোকেশন (যেমনঃ US, UK, CA) থেকে কেউ ইমেইল সাবমিট করলেই আমি ১-২ ডলার ইনকাম করতে পারবো।

এই মুহূর্তে যারা আর্টিকেল পড়ছেন তাদের অনেকেই বলছেন হ্যা, ঠিকই তো এটাই তো সিপিএ মার্কেটিং।  হ্যা, এটা সিপিএ মার্কেটিং কিন্তু এটাই শেষ না।

আমার নিজের শুরুর কিছু কথা

২০১৪-২০১৫ এর কথা, যখন আমি সিপিএ মার্কেটিং নিয়ে কাজ শুরু করেছিলাম তখন আমিও আপনার মতই চিন্তা করতাম।  আমি ইন্টারন্যাশনাল এক মেন্টর এর কাছ থেকে সিপিএ মার্কেটিং এ কোর্স করি এবং এর কারন ছিলো আমার মেন্টর মাত্র ৩ মাসে ১ মিলিয়ন ডলার ইনকাম করেছিলো সিপিএ মার্কেটিং করে।

আমি খুব আগ্রহ নিয়ে তার কাছে পার্সোনাল একটি কোর্স করি এবং তাকে আমি জিজ্ঞাসা করি তুমি কিভাবে ১-২ ডলারের অফার দিয়ে কিভাবে ১ মিলিয়ন ডলার ইনকাম করলে?

তখন আমার মেন্টর আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলো সিপিএ মার্কেটিং বলতে তুমি কি মনে করো? তোমার কি মনে হয় আমি ১/২ ডলারের অফার দিয়ে ১ মিলিয়ন ডলার ইনকাম করেছি? আমি মূলত একটি অবাকই হয়ে গিয়েছিলাম এই ভেবে যে আমি তো জানি সিপিএ মানেই হচ্ছে ১/২ ডলারের ইমেইল বা জিপ সাবমিট অফার।

তখন আমার মেন্টর আমাকে বিস্তারিত বোঝালো যে সিপিএ মার্কেটিং শুধু মাত্র ১/২ ডলারের অফার না আর ১/২ ডলারের অফার দিয়ে ১ মিলিয়ন ডলার ইনকাম করা যায় না।  সে মুলত সেলস সিপিএ অফার নিয়ে কাজ করেছেন এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর অল্টারনেটিভ হিসেবে সিপিএ অফার নিয়ে কাজ করেছে।  এবং সে ১/২ ডলারের অফার নিয়ে কাজ করে নি সে প্রতি অ্যাকশনে ৪০/৫০ ডলার করে ইনকাম করেছে।

কি কারনে সে সিপিএ অফার নিয়ে কাজ করেছে?

এর আর তেমন কোন কারন নেই শুধু ১ টাই কারন সিপিএ নেটওয়ার্কে যেই অফার গুলো থাকে সেখানে ৯৯% অফারে মানি-ব্যাক গ্যারান্টি থাকেনা।  এবং যদি কোন প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারে সেই টাকাটা সে নিশ্চিত পেয়ে যায়।  কিন্তু অ্যাফিলিয়েট মার্কেটপ্লেসে মুলত ৯৯% প্রোডাক্ট এ মানি-ব্যাক গ্যারান্টি থাকে এবং দেখা যায় ১ টা প্রোডাক্ট বিক্রি হবার পর আপনাকে নুন্যতম ১/২ মাস অপেক্ষা করতে হয় সেই কমিশন টি পাবার জন্য।  কারন যদি রিফান্ড হয় তাহলে আপনি কমিশনটি পাচ্ছেন না।

যাই হোক আশা করি বুঝতে পেরেছেন অ্যাফিলিয়েট এবং সিপিএ মার্কেটিং এর বেসিক পার্থক্য।  নিচের ভিডিওটি দেখুন আশা করি মার্কেটিং এর অনেক বেসিক বিষয় আপনি জানতে পারবেন।

আশা করি উপরের ভিডিও থেকে আপনি অনলাইন মার্কেটিং এর বেসিক অনেক বিষয়ই বুঝতে পেরেছেন।  যদি ভিডিও ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই চ্যানেল সাবক্স্রাইব করতে ভুলবেন না।

Recommendation

আপনি যদি ফ্রিলান্সিং বা ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে ম্যাবস্ আই.টি আপনাকে অনেকভাবেই সাহায্য করবে এবং আপনি চাইলে ম্যাবস্ আই.টি ফ্রি মেম্বারশিপ নিয়ে আগে মেম্বার্স প্যানেলের বিস্তারিত দেখতে পারেন।  এখানে অনেক ফ্রি কোর্সও আপনি পাবেন সেগুলো আগে দেখুন এর পর যদি আপনি মনে করেন ম্যাবস্ আই.টি আপনাকে সাহায্য করবে তাহলে মেম্বারশিপ আপগ্রেড করে নিতে পারবেন।

ফ্রি একাউন্ট করে নিতে এখানে ক্লিক করুন

FAQ

আমার এই পোস্ট যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করুন এবং আপনার যদি কোন ধরনের প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্টে জানাতে পারেন আমরা চেস্টা করবো আপনার প্রশ্নের উত্তর দিতে।

লাজুক হাসান

আস-সালামু-ওয়ালাইকুম, আমি লাজুক হাসান। আমি ম্যাবস্ আই.টি এর প্রতিষ্ঠাতা এবং আপনার কোর্স ইন্সট্রাকটর। আমি ৭ বছরেরও বেশি সময় ধরে ফ্রিলান্সিং এবং অনলাইন মার্কেটিং এর সাথে কাজ করছি।